ছাত্রলীগ নামক গুন্ডা বাহিনীর অপকর্মের কারণে দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা আজ ধ্বংসের মুখে

বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী ছাত্রদল এর মতে ছাত্রলীগের অপকর্মের কারণে সারা দেশের শিক্ষা ব্যবস্থা আজ ধ্বংসের মুখে পতিত হয়েছে। ছাত্রদলের সাধারণ সম্পাদক একরামুল হাসান এবং সভাপতি মামুনুর রশিদ মামুন সম্প্রতি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়য়ে ছাত্রলীগের বিবদমান দুই পক্ষের সংঘর্ষের পর শনিবার বিশ্ববিদ্যালয় অনির্দিষ্ট কাল বন্ধ ঘোষণার প্রাক্কালে এই পাশবিক ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়ে ঐ দিন রাতে স্থানীয় সংবাদ মাধ্যমে প্রেরিত এক যৌথ বিবৃতিতে চরম হতাশা ব্যক্ত করেন।

নেতৃত্বয় বলেন, ‘দেশের অন্যতম বিদ্যাপীঠ ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ে ছাত্রলীগের একের পর এক সন্ত্রাসী কার্যক্রমে শিক্ষার পরিবেশকে ধ্বংসের মুখে ফেলে দিচ্ছে। এই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি বারবার কলুষিত করছে ছাত্রলীগ। এ হামলা ছাত্রলীগের হিংস্রতা, বর্বরতা ও বিকৃত মানসিকতার বহিঃপ্রকাশ।’

ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে তারা আরও বলেন, “ছাত্রলীগ নামধারী সন্ত্রাসীরা দেশব্যাপী বিরোধী দলীয় ছাত্র সংগঠনের নিরীহ নেতা কর্মীদের একের পর এক হত্যা করছে এবং একই সাথে তারা নিজদলীয় অন্তরকোন্দলের কারণে নিজেদের মধ্যেও নিয়মিতভাবে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে লিপ্ত হচ্ছে।স্ব স্ব আধিপত্য, চাঁদাবাজি, টেন্ডার বাজি ইত্যাদি নানবিধ কারণে তারা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের দৈনন্দিন কার্যক্রমের কোনরূপ তোয়াক্কা না করে ভয়াবহ সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ছে। অন্যদিকে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কোন পদক্ষেপ না নিয়ে নীরব দর্শকের ভূমিকা পালন করছে।”

যৌথ বিবৃতিতে এই নেতৃবৃন্দ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে সুষ্ঠু পরিবেশ ফিরিয়ে আনার স্বার্থে এই নারকীয় ঘটনার বিচার বিভাগীয় তদন্ত এবং জড়িতদের বিরুদ্ধে অনতিবিলম্বে কঠোর আইনানুগ পদক্ষেপ নেয়ার উদাত্ত আহবান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.